২৬ ম্যাচ অপরাজিত থাকা অস্ট্রেলিয়াকে বড় ১টি রেকর্ড গড়ে হারালো ভারত

গত ম্যাচে অল্পের জন্য জয় হাতছাড়া হয়েছিল ভারতীয় মহিলা দলের। তবে মাত্র কয়েক ঘন্টার ব্যবধানে যে ক্রীড়াজগতে সবকিছুই বদলে যায়।

দ্বিতীয় ওয়ান ডেতে শেষ ওভারে অত্যন্ত খারাপ বল করে সমালোচিত হয়েছিলেন ঝুলন গোস্বামী, রবিবারে তিনিই ভারতের জয়ে ম্যাচের সেরা নির্বাচিত হলেন।

এদিন টস জিতে সিরিজে প্রথমবার আগে ব্যাট করার সুযোগ পায় অজিরা। সিরিজ হারলেও উদ্দীপনায় ভরপুর ঝুলন নিজের কেরিয়ারের ৬০০তম উইকেট নিয়ে রাচেল হেইন্সকে সাজঘরে ফেরত পাঠান।

একই ওভারে মেগ ল্যানিংকেও শুন্য আউট করেন তিনি। ৮৭ রানে চার উইকেট হারিয়ে একসময় বেশ চাপই পড়ে গিয়েছিল অজিরা।

সেখান থেকে বেথ মুনি (৬৪ বলে ৫২) এবং অ্যাশলে গার্ডনারের (৬২ বলে ৬৭ রান) জুটি পঞ্চম উইকেটে ৯৮ রান যোগ করে। শেষের দিকে তাহলিয়া ম্যাকগ্রা ঝোড়ো ৩২ বলে ৪৭ করে অজিদের ২৬৪ রানে পৌঁছাতে সাহায্য করেন।

গত ম্যাচে ৮৬ রান করলেও এদিন ফের একবার ভাল স্টার্ট করেও উইকেট ছুঁড়ে দিয়ে আসে স্মৃতি মন্ধনা (২৫ বলে ২২)।

তবে তাঁর পার্টনার শেফালি বর্মা (৯১ বলে ৫৬), যস্তিকা ভাটিয়াকে (৬৯ বলে ৬৫) সঙ্গে নিয়ে পার্টনারশিপ গড়ে তুলতে সক্ষম হন।

মূলত, তাঁদের ওপর ভর করেই ভারত জয়ের ভীত গড়ে। পরে দিপ্তী শর্মা (৩০ বলে ৩১) ও স্নেহ রানা (২৭ বলে ৩০) বাকি কাজটা সফলভাবে করেন।

ভারত দুই উইকেটে ম্যাচ জিতে নেয়। এই ম্যাচেই সর্বাধিক রান তাড়া করে জয়ের নজির গড়ল মিতালি রাজের নেতৃত্বাধীন ভারতীয় দল। ফলে ২৬ ম্যাচ পরে অবশেষে হারলেন ল্যানিংরা।

প্রসঙ্গত, ২০১৮ সালে ভারতের বিরুদ্ধে জয় দিয়েই এই ধারা শুরু করেছিলেন অজিরা। তাঁর তিন উইকেটের জন্য ঝুলনকে ম্যাচ সেরার পুরস্কার দেওয়া হয়।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *