১০ সেকেন্ডের মূল্য ৩০ লক্ষ টাকা! সব রেকর্ড ভেঙে দেবে ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ

ভারত বনাম পাকিস্তান হাইভোল্টেজ ম্যাচের সাক্ষী থাকতে তৈরি দুই দেশের সমর্থকরাও। মুহূর্তের মধ্যে সব টিকিট শেষ হয়ে গিয়েছে।

যাঁরা টিকিট হাতে পেয়েছেন তাঁরা নিজেদের ভাগ্যবান ভাবছেন। কারণ ভারত-পাক ম্যাচের টিকিট মানে তো লটারি জিতে যাওয়া।

আর সেটা হতেই হবে কারণ ২ বছর পর ফের ভারত-পাক মহারণ। ৫ বছর পর কুড়ি ওভারের ফর্ম্যাটে মুখোমুখি দুই চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী।

দুই দেশের ক্রিকেটাররাও মুখিয়ে মাঠে নামার জন্য। মাঠের ভিতরে কী কী রেকর্ড হবে তা সেই দিনেই জানা যাবে, তবে ম্যাচের আগে বাজার দর যা চলছে, তাতে সব রেকর্ড যেন ভেঙে দেবে ২৪ তারিখের ভারত বনাম পাকিস্তানের ম্যাচ।

ভারত-পাক ম্যাচের টিকিটের চাহিদা যেমন তুঙ্গে, তেমনই হিট বিজ্ঞাপনের বাজারও। ভারত-পাক ম্যাচের দিন বিজ্ঞাপনের জন্যও দেদার দর হাঁকাচ্ছে সম্প্রচারকারী সংস্থাও।

ওই বিশেষ দিনে বিজ্ঞাপনের জন্য ৯০০ কোটি টাকা লাভের মুখ দেখছে সম্প্রচারকারী সংস্থা। অনলাইন প্ল্যাটফর্মে লাইভ স্ট্রিমিংয়ে বিজ্ঞাপনের জন্য ২৭৫ কোটি টাকা লাভ হচ্ছে সংস্থার।

দর এতটাই উপরে উঠেছে যে অতীতের সমস্ত রেকর্ড ভেঙে চুরে দিয়েছে। ভারত-পাকিস্তান ম্যাচ চলাকালীন বিজ্ঞাপনের জন্য প্রতি ১০ সেকেন্ডে ২৫ থেকে ৩০ লক্ষ টাকা ধার্য্য করেছে সম্প্রচারকারী সংস্থা।

টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের জন্য আগেই অফিসিয়াল ব্রডকাস্টারের সঙ্গে ১৬টি স্পনসরের চুক্তি হয়েছে। এ ছাড়া আইসিসির সঙ্গে চুক্তিবদ্ধ ১৫টি মেগা স্পনসরও আছে এই তালিকায়।

বিজ্ঞাপনের বাজার দর গত কয়েক দিনে যে ভাবে লাফিয়ে লাফিয়ে বেড়েছে তাতে মুচকি মুচকি হাসছে সম্প্রচারকারী সংস্থা। শুধুই কি তাই, কো প্রেসেন্টিং স্পনসরশিপ বিক্রি হয়েছে ৬০ থেকে ৭০ কোটি টাকায়।

আর অ্যাসোসিয়েট স্পনসরশিপের জন্য ৩০ থেকে ৩৫ কোটি টাকার প্রস্তাব দেওয়া হয়েছে। বিরাট-বাবরদের দ্বৈরথ ঘিরে বিজ্ঞাপনের বাজার দর আরও চাঙ্গা হয়ে উঠেছে। এখন দেখার এই হাইভোল্টেজ ম্যাচের বিজ্ঞাপন সব রেকর্ড ভেঙে দেয় কিনা।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *