হার্দিককে বাড়ি পাঠাতে চেয়েছিলেন নির্বাচকরা, বাধ সাধেন ধোনি

ভারতীয় দলে হার্দিক পান্ডিয়ার জায়গা পাওয়া এবং তাঁর ফিটনেস নিয়ে চর্চা অব্যাহত। আইপিএলে হার্দিককে একটিও বল করতে তো দেখা যায়ইনি, বরং ব্যাট হাতেও চূড়ান্ত ব্যর্থ হয়েছেন তিনি। এরপরে ভারতীয়ও দলে তাঁর থেকে যাওয়া নিয়ে অনেকেই প্রশ্ন তোলেন।

Times of India-র এক রিপোর্ট অনুযায়ী এক সূত্রের তরফে দাবি করা হয় ভারতীয় নির্বাচকরা আদপে হার্দিককে দলে রাখতে চাননি। তবে নবনিযুক্ত ভারতীয় দলের মেন্টর মহেন্দ্র সিং ধোনির জোড়াজুড়িতেই নাকি তাঁকে দলে রেখে দেওয়া হয়। উক্ত সূত্রটি বলেন, ‘আসল সত্যিটা হল আইপিএলে বল না করার পর ভারতীয় নির্বাচকরা ওকে দেশে ফেরত পাঠাতে চেয়েছিল। তবে এম এস ধোনি হার্দিকের ফিনিশিং দক্ষতার দোহাই দিয়ে ওকে দলে রাখার আবেদন করেন।’

গোটা বিষয়টা একেবারে মেনে নিতে পারছেন না উক্ত ব্যক্তিটি। তাঁর মতে হার্দিকের ফিটনেস জনিত সমস্যা বহুদিনের এবং তাঁর জন্য একজন সম্পূর্ণ ফিট খেলোয়াড় দলে সুযোগ পাওয়া থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। ‘গত ছয় মাস ধরে ওর ফিটনেস নিয়ে এই সমস্যা চলছে। এখন বলা হচ্ছে ওর আবার কাঁধে চোট রয়েছে। এর ফলে একজন ফিট খেলয়াড় দলে সুযোগ পাচ্ছে না এবং একজন আনফিট খেলোয়াড় যে দলের কাজে লাগছে না, তাঁকে সুযোগ দেওয়া হচ্ছে। এটা ঠিক নয়।’ দাবি উক্ত ব্যক্তির।

ভারত রবিবার (৩১ অক্টোবর) নিউজিল্যান্ডের বিরুদ্ধে বিশ্বকাপে নিজেদের দ্বিতীয় ম্যাচে নামবে। পাকিস্তান ম্যাচের পর হার্দিকের চোট পরীক্ষার করার পর তাঁকে ফিট বলা হয়েছে। পাশপাশি ভারতীয় দলের আশা জাগিয়ে নেটে বল করতেও দেখা গেছে হার্দিককে। রবিবার হার্দিক ভারতের প্রথম এগারোয় থাকেন কি না, এখন সেটাই দেখার।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *