বিরাট কোহলির মতে পাকিস্তানকে হারাতে ভারতের যেই একজন ‘ব্যাটার’ই যথেষ্ট

আপাতত বল করবেন না। তবে স্রেফ ব্যাটার হিসেবেই টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের প্রথম ম্যাচে পাকিস্তানের বিরুদ্ধে খেলতে চলেছেন হার্দিক পান্ডিয়া। কার্যত তা স্পষ্টভাবে জানিয়ে দিলেন ভারতীয় পুরুষ ক্রিকেট দলের অধিনায়ক বিরাট কোহলি।

শনিবার সাংবাদিক বৈঠকে হার্দিককে নিয়ে প্রশ্নের জবাবে বিরাট বলেন, ‘এই টুর্নামেন্টের কোনও পর্যায়ে কমপক্ষে দু’ওভার বল করার ক্ষেত্রে প্রস্তুত হওয়ার নিরিখে হার্দিক পান্ডিয়ার শারীরিক অবস্থা ভালো হচ্ছে বলে আমি সত্যিকারের মনে করি।

ও বল করতে শুরু করার আগে পর্যন্ত আমাদের হাতে যে সুযোগ আছে, তার পুরোটার সদ্ব্যবহার করতে পারি আমরা। এদিক-ওদিকে কয়েকটি ওভারের জন্য আমরা কয়েকটি বিকল্প বিবেচনা করেছি। তাই এই বিষয়টা নিয়ে আমরা চিন্তিত নই।

এমনিতে অস্ত্রোপচারের পর থেকে তেমন বোলিং করেননি হার্দিক। টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে তিনি আদৌও বল করতে পারবেন কিনা, তা নিয়ে সন্দেহ আছে। অনেক বিশেষজ্ঞেরই বক্তব্য, যদি হার্দিক বল করতে না পারেন, তাহলে প্রথম একাদশে নেওয়ার কোনও অর্থ নেই।

পরিবর্তে কোনও বিশেষজ্ঞ বোলার বা বিশেষজ্ঞ ব্যাটার বা অল-রাউন্ডারকে নেওয়া হোক। যদিও সেই পরামর্শ গ্রহণ করতে একেবারেই আগ্রহী নন বিরাট। তিনি সাফ জানিয়ে দিয়েছেন, ছয় নম্বরে ব্যাটার হিসেবে হার্দিকের ভূমিকা অপরিহার্য।

বিরাট বলেন, ‘ছয় নম্বরে ও (হার্দিক) যে আমাদের হাতে সুযোগ দেয়, তা রাতারাতি তৈরি করা যায় না। তাই প্রথম থেকেই অস্ট্রেলিয়ায় আমি ওকে স্রেফ ব্যাটার হিসেবেই খেলানোর পক্ষপাতী।

আমরা দেখেছি যে টি-টোয়েন্টি সিরিজে ও কী করেছে এবং কীভাবে প্রতিপক্ষের হাত থেকে ম্যাচ ছিনিয়ে নিতে পারে। ছয় নম্বর ব্যাটার হিসেবে দলের হাতে যে সুযোগ এনে দেয়, তা আমরা ভালোভাবে বুঝি।

দলে এরকম খেলোয়াড় থাকা দরকার, যে প্রভাবশালী ইনিংস খেলতে পারবে। আমাদের কাছে বিষয়টা খুব সোজা, ও যেটা এই মুহূর্তে করতে পারছে না, তা জোর করে করানোর থেকে সেটা অনেক বেশ গুরুত্বপূর্ণ। ও চাঙ্গা হয়ে আছে এবং দু’ওভার মতো বল করার জন্য মুখিয়ে আছে।’

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *