ফুটবলের নিয়ম অনুযায়ী বন্ধ হয়ে যাওয়া ব্রাজিল আর্জেন্টিনার ম্যাচে জয়লাভ করেবে যে দল

কাতার বিশ্বকাপ বাছাইপর্বের গুরুত্বপূর্ণ ম্যাচে মুখোমুখি হয়েছিলো ব্রাজিল-আর্জেন্টিনা। যদিও খেলার শুরুতেই বেঁকে বসে ব্রাজিলের স্বাস্থ্য সংস্থার প্রতিনিধিরা। কো’ভিড-১৯ সংক্রান্ত নিয়ম না মেনে আর্জেন্টিনার ৩ ফুটবলারকে খেলানোর বিষয়টি নিয়েই বাঁধে যত ঝামেলা।

অবশ্য দিন কয়েক আগেই ব্রাজিলে পা রাখেন আর্জেন্টিনার খেলোয়াড়রা। সময় কাটান হোটেলে এবং সেই সাথে করেন অনুশীলনও।

যে চারজনকে নিয়ে এত অভিযোগ তাদের নিয়ে আগেভাগেই সিদ্ধান্ত না নিয়ে ম্যাচ শুরুর পর সব কার্যক্রম যেন শুরু করলো ব্রাজিলের স্বাস্থ্যকর্তারা।

ইংল্যান্ডে খেলেন বিধায় আন্তর্জাতিক ম্যাচ খেলতে এসে প্রয়োজনীয় কোয়ারেন্টাইন-বিধি মানেননি, যে কারণে আর্জেন্টিনার চার খেলোয়াড়কে ব্রাজিল থেকে বের করে দেওয়া হতে পারে, এমন খবর সারাদিন ধরেই শোনা যাচ্ছিল।

কিন্তু আনুষ্ঠানিকভাবে ব্রাজিল কোনো পদক্ষেপই নেয়নি! ওদিকে কনমেবল আর্জেন্টিনাকে আশ্বস্ত করে, খেলতে পারবেন এমিলিয়ানো মার্টিনেজ, জিওভান্নি লো সেলসো, এমিলিয়ানো বুয়েন্দিয়া ও ক্রিস্টিয়ান রোমেরো।

বুয়েন্দিয়া বাদে বাকি তিনজনই ছিলেন আজ আর্জেন্টিনার মূল একাদশে। তিন দিন ধরে এদের ব্যাপারে চূড়ান্ত কোনো সিদ্ধান্ত না দেওয়া ব্রাজিলের স্বাস্থ্য কর্তারা ম্যাচ শুরুর সাত মিনিটের মাথায় মাঠে ঢুকে শুরু করলেন তুলকালাম! যার ফলে এখন আনুষ্ঠানিকভাবেই ম্যাচ স্থগিত।

অনাকাঙ্ক্ষিত ঘটনায় ম্যাচ স্থগিত ঘোষিত হওয়ায় ব্রাজিল অন্তত কনমেবলের নিয়মকে নিজেদের পক্ষে পাচ্ছে না।

দক্ষিণ আমেরিকার ফুটবল নিয়ন্ত্রক সংস্থা কনমেবলের শৃঙ্খলাবিধির ৭৪ নম্বর ধারায় স্পষ্টভাবেই উল্লেখ করা আছে, ম্যাচ শুরু হয়ে গেলে খেলা থামিয়ে খেলোয়াড়দের ম্যাচ খেলায় নিষেধাজ্ঞা দেওয়া যাবে না।

খেলতে বাধা দেওয়া যাবে না। খেলোয়াড় সংক্রান্ত কোনো সমস্যা থাকলে সেটা মেটাতে হবে ম্যাচ শুরুর আগে বা পরে, ম্যাচ চলাকালীন সময়ে অবশ্যই নয়।

এমনটি হলে যে দলের কারণে ম্যাচ থেমে যাবে, সে দল তিন পয়েন্ট হারাবে। প্রতিপক্ষ দল পাবে সেই তিন পয়েন্ট।

সে হিসেবে সুবিধাজনক অবস্থানে আছে আর্জেন্টিনাই। এদিকে আনুষ্ঠানিক বিবৃতিতে কনমেবল জানিয়েছে, ম্যাচ রেফারি ও কমিশনার এই ম্যাচের রিপোর্ট জমা দেবেন ফিফার শৃঙ্খলা রক্ষাকারী কমিটির কাছে।

এরপর কী হবে না হবে সেটা প্রচলিত নিয়ম অনুযায়ী ফিফাই সিদ্ধান্ত নেবে। এখন সবকিছু নির্ভর করছে ফিফার ওপর।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *