চ্যাম্পিয়ন হতে চেন্নাইয়ের বিপক্ষে যেই একাদশ নিয়ে মাঠে নামছে কলকাতা নাইট রাইডার্স

আইপিএল ২০২১ শুরুর দিকে কেউ কি বলবে যে কলকাতা নাইট রাইডার্স (KKR) টিম আইপিএলের ১৪ তম আসরের ফাইনাল খেলবে, যখন মে মাসে টুর্নামেন্ট স্থগিত করা হয়েছিল। এমনকি কেকেআর সমর্থকরাও বলবে এটি অসম্ভব ঘটনা।

আইপিএলের প্রথম পর্বের শেষে, কেকেআর অসহায়ভাবে পয়েন্ট টেবিলে সপ্তম স্থানে ছিল এবং ৭ ম্যাচে মাত্র ২টি জয় পেয়েছিল।

আইপিএলের দ্বিতীয় পর্বে ইয়ন মরগানের নেতৃত্বাধীন কেকেআর টিম দুর্দান্ত ফর্মে ফিরেছে এবং আইপিএল ফাইনালে তার জায়গা পাকা করেছে।

আইপিএল দ্বিতীয় পর্বে কেকেআরের এই দুর্দান্ত ভাবে ফিরে আসা অনেকটা অসাধ্য সাধনের মতো। যা এর আগে আইপিএল ইতিহাসে দেখা যায়নি।

আইপিএলের দ্বিতীয়ার্ধে কেকেআর একটি দুর্দান্ত ইউনিট তৈরী করেছে। ভেঙ্কটেশ আইয়ার নিজের স্টাইলে আইপিএলে তার আগমনের ঘোষণা দিয়েছেন।

তিনি শীর্ষ অর্ডারে ব্যাটিং করতে এসে অনেক সতর্কতা অবলম্বন করে ৪০.০ এর গড়ে ৯ ইনিংসে ৩২০ রান করেন।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের ৩ টি অর্ধশতক নিজের নামে করেছেন এই বাঁহাতি। তার ওপেনিং পার্টনার শুভমান গিলও আইপিএল ২০২১-তে ২৫ এর বেশি গড়ে ৪২৭ রান করেছেন।

সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ বিষয় হলো গিল লাস্ট তিনটি ইনিংসে ২ টি হাফ সেঞ্চুরি করেছেন। অন্যদিকে রাহুল ত্রিপাঠি, যার নাম না লিখলেই নয়। রাহুল ত্রিপাঠি না হলে কেকেআর টিম আজ ফাইনালে পৌঁছাতে পারতো না।

কোয়ালিফায়ার ২-এ দিল্লি ক্যাপিটালসের দেওয়া১৩৬ রানের লক্ষ্য তাড়া করে, কেকেআর টিম ৯৬ রান থেকে ১৩০ রান করতে ৭টি উইকেট চলে যায়। ফাইনালে তাদের জায়গা নিশ্চিত করতে শেষ ২টি বলে ৬ রান দরকার ছিল।

ঠিক সেইসময় ত্রিপাঠি ব্যাট করতে নেমে রবিচন্দ্রন অশ্বিনকে দুর্দান্ত ছক্কা হাঁকিয়ে চেন্নাই সুপার কিংসের (CSK) বিরুদ্ধে ফাইনালে তার টিমকে শক্তিশালী করেছিলেন।

যদি কেকেআর অধিনায়ক ইয়ন মরগ্যানের কথা বলি, তার বর্তমান ফর্ম খুব হতাশজনক। মরগ্যান ১১.৭ এর গড়ে ১৫ ইনিংসে ১২৯ রান করেন।

অন্যদিকে দীনেশ কার্তিক সব ম্যাচে ঠিক মতো খেলতে পারেনা। টিমের বোলিং লাইনআপের কথা বলি, বরুণ চক্রবর্তী, শিবম মাভি এবং সুনীল নারাইনের মতো দুর্দান্ত খেলোয়াড়।

আইপিএল ২০২১-এ বরুন চক্রবর্তী ১৮ উইকেট পেয়েছেন, মাভি এবং নারিন যথাক্রমে ১০ ও ১৪ উইকেট নিয়েছেন। চেন্নাই সুপার কিংস (CSK) কোয়ালিফায়ার ১-এ দিল্লি ক্যাপিটালস (DC) টিমকে ৪ উইকেটে পরাজিত করে ফাইনালে জায়গা নিশ্চিত করেছে।

চেন্নাইয়ের জন্য, রুতুরাজ গায়কওয়াড ব্যাটিং বিভাগে দুর্দান্ত নাম। ডানহাতি এই ব্যাটসম্যান আইপিএল ২০২১-এ দ্বিতীয় সর্বোচ্চ রান সংগ্রাহক এবং ৪৬.৩৮ এর গড়ে ৬০৩ রান করেছেন। ফাফ ডু প্লেসিসও ভাল ফর্মে রয়েছেন এবং প্রতিযোগিতায় মোট ৫৪৭ রান করেছেন।

কোয়ালিফায়ার ১-এ রবিন উথাপ্পা চেন্নাইয়ের হয়ে অভিষেক করেন, ৪৪ বলে ৬৩ রান করেন। অন্যদিকে এমএস ধোনি ভক্তদের পুরনো দিন ফিরিয়ে দেন, ৬ বলে ১৮ রান মেরে তাঁর টিমকে দিল্লি ক্যাপিটাল্সের হাত থেকে রক্ষা করে।

সেইসঙ্গে রবীন্দ্র জাদেজা, যিনি এই মরসুমে খেলার প্রতিটি ইনিংসে দুর্দান্ত পারফমেন্স করেছেন। শার্দুল ঠাকুর তাঁর বোলিং অ্যাকশনে ১৮ টি উইকেট পেয়েছেন। জোশ হ্যাজেলউড সংযুক্ত আরব আমিরাতের পর্বে ৯টি উইকেট নিয়েছেন।

এমএস ধোনির নেতৃত্বাধীন টিমের জন্য দীপক চাহার ১৩টি উইকেট নিয়েছেন। সুতরাং, এই সব দুর্দান্ত ক্রিকেটারদের নিয়ে ১৫ই অক্টোবর দুটি টিম আইপিএল ট্রফি দখলের লড়াইয়ে নামবে।

এখন দেখার এটাই যে , এমএস ধোনির টিম চতুর্থ নাকি মরগ্যানের কেকেআর তৃতীয়বার ট্রফি জিতবে।

পিচ রিপোর্ট ও আবহাওয়া= দুবাইয়ের পিচ ব্যাটিংয়ের জন্য ভালো। উইলো উইল্ডাররা এই পিচে তাদের শটের মূল্য পাবে।

তাড়া করা টিমটি এই ভেন্যুতে খেলা শেষ ৮ টি ম্যাচ জিতেছে। সুতরাং, উভয় টিমই টস জিততে এবং প্রতিপক্ষকে আটকানোর চেষ্টা করতে পারে। এখানকার আবহাওয়ার কথা বললে, কালকে দুবাইতে ৩২ ডিগ্রি তাপমাত্রা থাকবে। বৃষ্টির কোনো সম্ভবনা নেই।

চেন্নাই সুপার কিংস= প্রথম কোয়ালিফায়ারে জয়ের পর,সিএসকে সাইড খুব বেশি পরিবর্তন করবে না। তাদের আগের ম্যাচ থেকে একই প্লেয়িং একাদশের সাথে খেলবে বলে প্রত্যাশা করা যায়।

সম্ভাব্য একাদশ: রুতুরাজ গায়কওয়াড়, ফাফ ডু প্লেসিস, মইন আলী, আম্বাতি রায়ডু, রবিন উথাপ্পা, এমএস ধোনি (c & wk), রবীন্দ্র জাদেজা, ডোয়াইন ব্রাভো, দীপক চাহার, শার্দুল ঠাকুর, জোশ হ্যাজেলউড

কলকাতা নাইট রাইডার্স= কলকাতা নাইট রাইডার্সও তাদের খেলার একাদশে কোনো পরিবর্তন আনবে বলে আশা করা যাচ্ছে না।

সম্ভাব্য একাদশ: ভেঙ্কটেশ আইয়ার, শুভমান গিল, রাহুল ত্রিপাঠি, নীতিশ রানা, ইয়ন মরগ্যান (c), সুনীল নারাইন, সাকিব আল হাসান, দীনেশ কার্তিক (wk), শিবম মাভি, লকি ফার্গুসন, বরুণ চক্রবর্তী

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *