চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী ব্রাজিলের কাছে হেরে শঙ্কায় আর্জেন্টিনার হেক্সা মিশন

প্রথম ম্যাচে প্যারাগুয়ের কাছে ২-১ গোলে পরাজিত হওয়ায় ব্রাজিলের বিপক্ষে ম্যাচটি ছিল আর্জেন্টিনার কাছে ডু অর ডাই ম্যাচ। কেননা এ ম্যাচে হারলেই বিদায়ের শঙ্কা রয়েছে। শেষ পর্যন্ত হয়েছেও তাই। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের কাছে হেরেই বসল আলবিসেলেস্তেরা।

৬৪ শতাংশ বল পজিশনে এগিয়ে থাকলেও কাজের কাজটি করতে ব্যর্থ মেসি-ডি মারিয়াদের অনুজরা। গোলমুখে ১১ শটের ৬টি লক্ষ্যে রেখে মাত্র একটি গোলই করতে সক্ষম হয় আর্জেন্টিনার যুবারা।

অন্যদিকে ৩৬ শতাংশ বল নিজেদের দখলে রেখে ১১টি শটের ৭টি লক্ষ্যে রেখে ৩ গোল আদায় করে নেয় ব্রাজিল। আজ মঙ্গলবার ২৪ জানুয়ারি এস্তাদিও অলিম্পিকোতে বাংলাদেশ সময় সকাল সাড়ে ৬টায় মুখোমুখি হয় ব্রাজিল ও আর্জেন্টিনা।

ম্যাচটিতে ব্রাজিল ৩-১ গোলে পরাজিত করে আলবিসেলেস্তেদের। ব্রাজিলের হয়ে গোল করেন গুইলার্মো বিরু, আন্দ্রে সান্তোস ও ভিটর রোকে। আর্জেন্টিনার হয়ে একমাত্র গোলটি করেন ম্যাক্সি গনজালেজ।

খেলা শুরুর ৮ম মিনিটে মিডফিল্ডার গুইলর্মো বিরুর গোলে এগিয়ে যায় ব্রাজিল। এই গোলটি পরিশোধের সুযোগ এসেছিল আর্জেন্টিনার সামনে। ম্যাচের ২৬ মিনিটের সময় পেনাল্টি পায় তারা।

কিন্তু আর্জেন্টিনার জিনো ইনফান্তিনোর নেয়া শট ব্রাজিলিয়ান গোলরক্ষক মাইকেল পন্তেস মোরেইরা দুর্দান্তভাবে সেভ করে ব্রাজিলের লিড অক্ষত রাখেন।

৩৬ মিনিটে আন্দ্রে সান্তোস গোল করে ব্রাজিলের লিড বাড়ান। বিরতি পর্যন্ত ২-০ গোলে এগিয়ে ছিল ব্রাজিল। বিরতির পর ৮৭ মিনিটে পেনাল্টি থেকে গোল করে ব্রাজিলের লিড ৩-০ করেন ভিটর রোক। টুর্নামেন্টে ভিটরের এটি তৃতীয় গোল।

প্রথম ম্যাচে পেরুর বিপক্ষে জোড়া গোল করেছিলেন ভিটর। তিন গোল হজমের পর ম্যাচের ৯০ মিনিটে ম্যাক্সি গনজালেজ একটি গোল পরিশোধ করে আর্জেন্টিনার হয়ে।

তবে এটা তাদের হার থেকে বাঁচাতে পারেনি। ব্রাজিল তাদের প্রথম ম্যাচে পেরুকে ৩-০ গোলে পরাজিত করে। আর আর্জেন্টিনা প্যারাগুয়ের কাছে ২-১ গোলে পরাজিত হয়।

এই জয়ের ফলে গ্রুপ এ থেকে ২ ম্যাচে ২ জয়ে ৬ পয়েন্ট নিয়ে টেবিলের দ্বিতীয় স্থানে ব্রাজিল। এক ম্যাচ বেশি খেলা প্যারাগুয়ে ২ জয় ও ১ ড্রয়ে ৭ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছে টেবিলের শীর্ষে।

কলম্বিয়া ২ ম্যাচ থেকে এক জয় ও এক ড্রয়ে ৪ পয়েন্ট নিয়ে রয়েছে টেবিলের তৃতীয় স্থানে। আর্জেন্টিনার অবস্থান চতুর্থ।

এদিকে আর্জেন্টিনা তাদের পরবর্তী ম্যাচ খেলবে আগামী বৃহস্পতিবার ২৬ জানুয়ারি পেরুর বিপক্ষে। ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় ভোর ৪টায়। আর শেষ ম্যাচ খেলবে আগামী শনিবার ২৮ জানুয়ারি কলম্বিয়ার বিপক্ষে। ম্যাচটি শুরু হবে সকাল সাড়ে ৬টায়।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *