ক্ষমা চেয়েও লাভ হয়নি শাহিন আফ্রিদির; সবশেষ বড় শাস্তি দিল আইসিসি

অখেলোয়াড়ি সুলভ আচরণের শাস্তি পেলেন শাহীন শাহ আফ্রিদি। শনিবার রবিবার বাংলাদেশ-পাকিস্তানের দ্বিতীয় টি-টোয়েন্টিতে স্ট্রাইকে থাকা আফিফ হোসেনের দিকে বল ছুড়ে মারেন ২১ বছর বয়সী পেসার।

শাহীনের এমন অখেলোয়াড়ি মানসিকতা পছন্দ হয়নি কারও। সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে সমালোচনার মুখে পড়েন তিনি।পরে অবশ্য ম্যাচ শেষে আফিফের কাছে ক্ষমা চান পাকিস্তানি পেসার।

কিন্তু তারপরও শাস্তি থেকে রেহাই পেলেন না শাহীন। আইসিসির ম্যাচ রেফারির বিধান করা শাস্তি অনুযায়ী তাকে ম্যাচ ফি’র ১৫ শতাংশ জরিমানা দিতে হবে।

পাকিস্তানের বিপক্ষে তিন টি-টোয়েন্টি সিরিজের দ্বিতীয় ম্যাচে বাংলাদেশ প্রথম দুই উইকেট হারালে ব্যাট হাতে মাঠে নামেন আফিফ। নিজের দ্বিতীয় ওভার করতে আসা শাহীনের প্রথম দুই বল খেলে নাজমুল হোসেন শান্ত স্ট্রাইক দেন আফিফকে।

আর প্রথম বলেই চোখ ধাঁধানো ছক্কা এই বাঁহাতি তরুণের। ছক্কা খেয়ে মেজাজটাও ঠিক রাখতে পারেননি শাহীন। পরের বল ঠেকিয়ে দেন আফিফ।

কিন্তু বল কুড়িয়ে নিয়ে রানআউটের উদ্দেশ্যে স্ট্যাম্প লক্ষ্য করে ছোড়েন পাকিস্তানি পেসার।অবশ্য দেখে মনে হয়, ইচ্ছেকৃতভাবে আফিফকে আঘাত করতে চেয়েছিলেন শাহীন।

তার ছোড়া বল লাগে আফিফের অরক্ষিত পায়ে। প্যাডের পেছনে। ব্যথায় মাটিতে বসে পড়েন তিনি। ছুটে আসেন ফিজিও। ভাগ্য ভালো, বড় কোনো চোটে পড়তে হয়নি আফিফকে। ব্যথা ঝেড়ে ফের ব্যাটিং শুরু করেন তিনি। আর শাহীন এই ঘটনার জন্য তৎক্ষণাৎ ক্ষমা চান।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *