ক্রিকেট স্পিরিট কাকে বলে ইংল্যান্ডকে শেখালেন মিচেল, বোলারের পথে বাধা হওয়ায় রান নিলেন না কিউয়ি ওপেনার

২০১৯ বিশ্বকাপের ফাইনালে ফিল্ডার মার্টিন গাপ্তিলের ছোঁড়া বল রান নেওয়ার জন্য দৌড় লাগানো বেন স্টোকসের ব্যাটে লেগে বাউন্ডারির বাইরে চলে গেলে মোট ৬ রান (ব্যাটসম্যানদের নেওয়া ২ এবং ওভার থ্রো’র ৪) উপহার পেয়েছিল ইংল্যান্ড।

ক্রিকেটের নিয়মে বৈধ রান হওয়ায় ইংল্যান্ড অধিনায়ক মর্গ্যান মাঝে হস্তক্ষেপ করেননি। ইংল্যান্ডের বিশ্বচ্যাম্পিয়ন হওয়ার ক্ষেত্রে সেই বাড়তি চারটি রান কতটা গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে, সেটা আলাদা করে বলে দেওয়ার প্রয়োজন হয় না।

এবার সেই ইংল্যান্ডকেই ক্রিকেটের স্পিরিটের পাঠ পড়ালেন নিউজিল্যান্ড ওপেনার ডারিল মিচেল। নিজের আচরণ দিয়ে বুঝিয়ে দিলেন, ক্রিকেটকে কেন ভদ্রলোকের খেলা বলা হয়।

বিশ্বকাপের সেমিফাইনালের মতো বড় ম্যাচ। তার উপর জয়ের জন্য ৩ ওভারে দরকার ৩৪ রান। এমন গুরুত্বপূর্ণ সময়ে প্রতিটা রানের মূল্য কতটা, তা বোঝার জন্য ক্রিকেট বিশেষজ্ঞ হওয়ার দরকার হয় না।

অথচ সুযোগ থাকা সত্ত্বেও ডারিল মিচেল রান নেননি শুধুমাত্র বোলার আদিল রশিদের সামনে অনিচ্ছাকৃত বাধা সৃষ্টি করেছিলেন বলে।

১৭.১ ওভারে রশিদের বল সামনের দিকে ঠেলে দিয়েই রান নিতে উদ্যত হন জিমি নিশাম। ওভার দ্য উইকেট বল করা রশিদ ফলো-থ্রুয়ে বল ধরার চেষ্টা করেন। তবে নন-স্ট্রাইকার ব্যাটসম্যান মিচেলের সঙ্গে ধাক্কা লাগে তাঁর।

মিচেল মোটেও ইচ্ছাকৃতভাবে রশিদের পথে বাধা হয়ে দাঁড়াননি। ক্রিকেটে এমন হামেশাই দেখা যায় এবং বোলার বল ধরতে না পারলে রান নিতেও দেখা যায় ব্যাটসম্যানদের। তবে এদিন রশিদের পথে বাধা হয়েছিলেন বলেই রান নেননি মিচেল। সেই বলে অনায়াসে ২ রান সংগ্রহ করতে পারত নিউজিল্যান্ড।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *