কোহলির টি-টোয়েন্টির নেতৃত্ব ছাড়ার নেপথ্য , গোপন তথ্য ফাস

দুবাইয়ে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপের পর দলের নেতৃত্ব ছাড়ছেন বিরাট কোহলি, নিজেই টুইট করে জানিয়ে দিয়েছেন এই কথা।

টেস্টে আরও বেশি মনোনিবেশ করার জন্যে এবং বিশ্বের সেরা ব্যাটসম্যানের তকমা ফিরে পাওয়ার জন্যে তাঁর এই সিদ্ধান্ত বিরাট কিংবা ক্রিকেট বোর্ডের এই রকমই ভাষ্য।

কিন্তু অনুসন্ধানে উঠে এসেছে সম্পূর্ণ আলাদা তথ্য। ভারতীয় ক্রিকেট দলে বিরাট কোহলি-রোহিত শর্মার সংঘাতই বিরাটকে নেতৃত্ব ছাড়তে বাধ্য করল। আরও বলা ভালো বোর্ড সরিয়ে দেওয়ার আগে বিরাট নিজেই সরে গেলেন।

টি-টোয়েন্টি ক্রিকেটে রোহিতকে সহ অধিনায়কের পদ থেকে সরিয়ে কে এল রাহুলকে ওই পদে আনার যে সুপারিশ কোহলি করেছিলেন তা ভারতীয় বোর্ড ভালোভাবে নেয়নি।

রোহিত এর বয়েস হয়ে গেছে বলে রাহুলকে সহ অধিনায়ক চেয়েছিলেন কোহলি। এমনিতেই বিরাট-রোহিতের ইগো সমস্যার কথা সবাই জানে।

দলের জুনিয়র ক্রিকেটারদের কাছে রোহিত শর্মা বিরাট কোহলির থেকে অনেক বেশি গ্রহণযোগ্য। ধোনির ঘর যেমন দলের জুনিয়রদের জন্য খোলা খাতা ছিল।

পরামর্শের জন্যে যখন তখন যে কেউ সেখানে যেতে পারতেন, রোহিতও ঠিক তেমন। জুনিয়র খেলোয়াড়দের সমস্যা সম্পর্কে সমান যত্নবান। বিরাটের সঙ্গে দলের খেলোয়াড়দের যোগাযোগ কেবল মাঠে।

তাই, বিরাটের থেকেও রোহিত বেশি পছন্দ সহ খেলোয়াড়দের। বিরাট পিতৃত্বকালীন ছুটিতে যাওয়ার সময় রোহিত যে ভাবে দলের নেতৃত্ব দিয়েছেন তাতে খুশি বোর্ডও।

ইংল্যান্ডে দল ৩৬ রানে অল-আউট হওয়ার পর বিরাটের নেতৃত্বও প্রশ্নের সামনে পড়ছিল। দুবাইয়ের পর হয়ত তাকে সরিয়েই দেওয়া হত। আঁচ করে বিরাটই সরে গেলেন।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *