আইপিএলে ছারতে চাইছেন স্মিথ, ওয়ার্নার, প্যাট কামিন্স জানালেন ডেভিড হাসি

ভারতের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে ভীতি আর উৎকণ্ঠায় দিনাতিপাত করছেন সকল অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটার সহ বেশিরভাগ বিদেশি ক্রিকেটাররাই।

এই পরিস্থিতিতে ভারতে থাকতেই যত ভয় তাদের। না খেলে ফিরতে চান দেশে। ফলে পাকিস্তান সুপার লিগের মত মাঝপথে আইপিএল বন্ধ হবার একটা জল্পনা সর্বত্র ঘুরে বেড়াচ্ছে।

কলকাতা নাইট রাইডার্সের মেন্টর ডেভিড হাসিও বাড়ি ফিরতে চাইছেন। ব্যক্তিগত কারণ দেখিয়ে বাড়ি ফিরেছেন অস্ট্রেলিয়ান ফাস্ট বোলার অ্যান্ড্রু টাই, লিয়াম লিভিংস্টোনরা। যদিও কোভিডে উদ্বিগ্ন হয়েই বাড়ি ফিরেছেন সেটি এই ফাস্ট বোলার যেটি আসেনি লাইমলাইটে।

এর ফলে রাজস্থান রয়েলসে এখন বিদেশির সংখ্যা মাত্র চার জন (বাটলার, মিলার, মরিস, মুস্তাফিজুর)। কোনও কারণ বশত একজন বিদেশি খেলতে না পারলে নির্দিষ্ট কোটার চেয়ে কম খেলোয়াড় নিয়েই মাঠে নামতে হবে তাদের।

টাইয়ের দেখানো পথে সব অস্ট্রেলিয়ান ক্রিকেটাররাই হাটতে চায় এমন মন্তব্য করেছেন ডেভিড হাসি। খবর হিন্দুস্থান টাইমসের। হাসি জানিয়েছেন প্লেয়াররা ভারতের সবকিছু নখদর্পনে রেখেছেন দেখছেন কিভাবে মানুষ আক্রান্ত হচ্ছে আর মুহুর্তে প্রাণ হারাচ্ছে।

প্রয়োজনে ফ্র্যাঞ্চাইজির মালিকদের সঙ্গে কথা বলতে চান তাঁরা। এমন কি অস্ট্রেলিয়া সরকারের সঙ্গেও কথা বলে রাখতে চান। কারণ প্রয়োজনে বিমান পরিষেবায় যেন কোনও অসুবিধা না হয়।

ভারতে বর্তমান কোভিড পরিস্থিতি সম্পূর্ণ নিয়ন্ত্রণের বাইরে। অক্সিজেনের অভাবে রাস্তাঘাটে প্রাণ যাচ্ছে অগণিত মানুষের। মৃত লাশ সৎকার করার স্থানগুলোতে পর্যন্ত ফাঁকা নেই জায়গা। সারাদিন সিরিয়াল দিয়ে পোড়ানো হচ্ছে লাশ।

কলকাতার মেন্টর ডেভিড হাসি আরও জানিয়েছেন, অস্ট্রেলিনায় ক্রিকেটাররা ভয়ে রয়েছেন। পরিস্থিতি আরও খারাপ হওয়ার আগেই স্টিভ স্মিথ, ডেভিড ওয়ার্নার, প্যাট কামিন্সরা বাড়ি ফিরতে চান।

এমন অবস্থায় আইপিএল কমিটি কি সিদ্ধান্ত নিবে? তাদের ছাড়াই খেলবে নাকি মাঝ পথে বন্ধ করতে হবে আইপিএল? জানতে হলে অপেক্ষা করতে হচ্ছে।

Related Posts

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *